তাবু কেনার সময় কি কি বিষয় মাথায় রাখা উচিত এটা নিঃসন্দেহে একটা সার্বজনীন প্রশ্ন। আমাকে প্রায়শ বিভিন্ন জনের কাছে এই প্রশ্নটা যেমন শুনতে হয় তেমনি আমাদের অনলাইন স্টোরে থাকা কোন তাবু বিক্রি করার সময়ও নিয়মিত নানান উদ্ভট প্রশ্ন আর মন্তব্যের সম্মুখীনও হতে হয়। কেউ কেউ হয়ত বলছে তাবুটা ভীষণ ছোট ভেতরে দাঁড়ানো যায়না, কেউ আবার বলছে ওজন অনেক বেশী, কারো আবার সব ঠিক আছে কিন্তু দামটা এতো বেশী কেন, কাউকে আবার থ্রী সিজন, ফোর সিজন ইত্যাদি বিষয় বোঝাতে হিমসিম অবস্থা। এ ব্যাপারে কাউকে যে আলাদা করে দোষ দেয়া যাবে তা নয়। পুরো বিষয়টার দায়ভার আসলে এ বিষয়ে আমাদের অজ্ঞতার। যারা বিক্রি করছি তাদের যেমন জানানোর সুযোগ কম থাকে তেমনি যারা কিনছে তাদেরও বাজার ভর্তি এতো এতো অপশনের ভিরে নাস্তানাবুদ অবস্থা।

ছোট তাবু, বড় তাবু, থ্রী সিজন, ফোর সিজন, রকমারী ব্র্যান্ড ইত্যাদি ইত্যাদি হাজারো প্রশ্নের সামনে এসে দাঁড়িয়ে তাবু কিনতে কাবু হয়ে যাওয়া মানুষগুলোর অবস্থা আসলেই বেশ নাজুক। আর সেই কাবু হয়ে থাকা মানুষগুলোকে বুদ্ধিমান বাবু বানানোর লক্ষ্যেই আজকের এই লেখা। অতএব, আসুন আর দেরী না করে জলদি জলদি জেনে নেই তাবু কেনার সময় কি কি বিষয় মাথায় রাখা উচিত ।

⇒ তাবু কেন এবং কোথায় ব্যবহার করার জন্য কিনবেন ? :

প্রথমেই নিশ্চিত হয়ে নিন আপনার তাবু কেনার প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে। আপনার সত্যিই কি তাবু কেনা প্রয়োজন আর যদি প্রয়োজন হয়েই থাকে তাহলে কেন আপনার তা প্রয়োজন? আপনি কি শ্রেফ কাছেপিঠে কোথাও একটা রাত শখের ক্যাম্পিংয়ের জন্য তাবু কিনতে চলেছেন নাকি আপনি নিয়মিত ক্লাইম্বিং, হাইকিং, ট্রেকিং বা অনুরূপ অ্যাডভেঞ্চার অ্যাকটিভিটির সাথে জড়িত! আপনি কি তুষারাবৃত পার্বত্য পথে ট্রেকিং বা ক্লাইম্বিংয়ে চলেছেন নাকি আমাদের দেশের মত ট্রপিক্যাল কোন জঙ্গল বা পাহাড়ি এলাকা আপনার গন্তব্য? ক্যাম্পিংয়ের জন্য শীত, গ্রীষ্ম বর্ষা সবই আপনার পছন্দ নাকি নিতান্তই গরমের দিনে খানিক শীতলতার স্পর্শ খুঁজতে যাওয়া আপনার ক্যাম্পিংয়ের মুল লক্ষ্য? এসব প্রশ্নের উত্তর না মেলা পর্যন্ত তাবু কেনা থেকে নিজেকে বিরত রেখে আপাতত এই আর্টিক্যালটা শেষ পর্যন্ত পড়ুন।

⇒ কেমন আবহাওয়া বা পরিবেশের জন্য আপনার তাবু প্রয়োজন? :

পার্বত্য চট্রগ্রামের যেকোন ট্রেকিং রুট কিংবা বাংলাদেশ বা অনুরূপ যেকোন বন-জঙ্গল, নদী তীর, সমুদ্রতট আপনার ক্যাম্পিংয়ের পরিকল্পনা যেখানেই হোক না কেন, আপনি নিশ্চিন্তে ফাইবার পোল এবং বৃষ্টি প্রতিরোধক  নাইলন ফেব্রিকে তৈরি থ্রী সিজন টেন্ট বা তাবু কিনতে পারেন। এই তাবুগুলো রোদ, বৃষ্টি কিংবা কুয়াশাচ্ছন্ন শীতের মৌসুম এই তিন ঋতুতেই সমান কার্যকারী। গ্রীষ্মকালীন তাবু বা সামার টেন্টগুলোও এখানে ভালো সাপোর্ট দেয় তবে বৃষ্টি বা জল প্রতিরোধক ব্যবস্থা না থাকায় শীতের সময় কুয়াশার কারণে তাবুর ভেতরের আপনার মুল্যবান জিনিসপত্র আর আপনার ভিজে যাওয়ার সমুহ সম্ভাবনা রয়েছে। এখানে ছোট্ট একটা টিপস্ দিতে পারি তা হলো, আপনার বাজেট যদি কম থাকে কিংবা যদি ইতমধ্যেই একটা সামার টেন্ট আপনার সংগ্রহে থাকে তা হলে লিভিং উইথ ফরেস্টের ফেসবুক পেইজে যোগাযোগ করতে পারেন। আপনার সামার টেন্ট কে বৃষ্টি প্রতিরোধক বানিয়ে দিতে আমরা আপনাকে সাহায্য করতে পারি। আশা করছি এতক্ষণে থ্রী সিজন আর সামার টেন্টের বিষয়টা আপনাদের কাছে পরিস্কার এবং এও বুঝে গেছেন যে সামার টেন্টগুলো থ্রী সিজনের চেয়ে তুলনামুলকভাবে দামে সস্তা।

এবার আসি ফোর সিজন টেন্ট বা তাবু প্রসঙ্গে। গ্রীষ্মের রোদ্দুর, বৃষ্টির জল আর শীতের কুয়াশা ছাড়াও এই তাবুগুলো আপনাকে রক্ষা করবে তুষারপাত, তুষারঝড় এবং আকস্মিক ঝড় ঝঞ্জার হাত থেকে। ধরুন আপনি হিমালয়ের কোথাও কিংবা তুষারপাত অথবা সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে অনেক উঁচুতে যেখানে বাতাসের গতি যেকোন সময় বেড়ে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে এমন কোথাও ক্যাম্প করবেন সেক্ষেত্রে আপনার একমাত্র ভরসা ফোর সিজন টেন্ট। হাইলি ডিউরেবল নাইলন ফেব্রিক, অ্যালুমিনিয়াম পোল এবং সঠিক আলপাইন সেইপে তৈরি বিধায় ফোর সিজন টেন্টগুলো পর্বতের পথে আপনার স্বপ্নের বাড়ির মতই আপনার মাথার উপর নিরাপত্তার ছাঁয়া হয়ে থাকবে।

⇒ কেমন হবে আপনার তাবুর আয়তন এবং ওজন? :

এই আর্টিক্যালে এই প্রশ্নের উত্তরটাই হয়ত সবচেয়ে সহজ। আপনি যেখানে ক্যাম্প করবেন সেখানে যদি গাড়ি নিয়ে যাওয়া যায় তাহলে আপনি চোখ বন্ধ করে বাজারে প্রাপ্ত সবচেয়ে বড় ফ্যামিলি টেন্ট বা তাবুটা কিনে ফেলতে পারেন। রকমারি ডিজাইনের থ্রী রুম, ফোর রুম, ডাইনিং স্পেস, টানা বারান্দা আপনার পরিবারের সদস্য এবং আপনার পোষা প্রাণীদের প্রয়োজন অনুযায়ী পর্যাপ্ত জায়গা ইত্যাদি নানান সুবিধাসংবিলিত পনের থেকে বিশ কেজি ওজনের বিশাল এসব তাবুর যেকোনটিই হতে পারে আপনার সেরা পছন্দ যার ভেতর আপনি সত্যিকার অর্থেই মাথা তুলে দাঁড়াতে পারবেন।

তবে যদি এমন হয় আপনার তাবু এবং আপনার ব্যাকপ্যাক ভর্তি সকল জিনিসপত্র আপনাকেই পিঠে নিয়ে সারাদিন ঈষ্টনাম জপ করতে করতে চড়াই-উৎরাই ভেঙ্গে পথ চলতে হবে তাহলেই শুরু আসল সমস্যার। দলে কজন থাকবেন, কতদিনের পরিকল্পনা হতে পারে, কেমন জিনিসপত্র আপনার বহন করতে হতে পারে ইত্যাদি ইত্যাদি নানাবিধ বিষয় মাথায় রেখেই নির্ধারণ করুন আপনার তাবুর আয়তন এবং ওজন কেমন হওয়া উচিত। আপনি যদি একা হন তাহলে সিঙ্গেল পারসন, যদি দলে দু-তিনজন থাকেন তাহলে দুই, তিন বা চারজনের তাবু কিনতে পারেন সেক্ষেত্রে তাবুর বিভিন্ন আনুষঙ্গিক যেমন রেইনফ্লাই, পোল, ইনার টেন্ট ইত্যাদি সবাই আলাদা আলাদা করে বহন করতে পারবেন।

⇒ ব্যাকপ্যাকিং এবং আলট্রা-লাইট ব্যাকপ্যাকিং টেন্ট:

বিশাল আয়তনের ফ্যামিলি টেন্ট ছাড়া বাজারে প্রাপ্ত প্রায় সকল থ্রী সিজন, ফোর সিজন কিংবা সামার টেন্টগুলোকে সাধারণত ব্যাকপ্যাকিং টেন্ট বলা হয়। এসমস্ত টেন্ট আয়তন ভেদে তিন কেজি থেকে পাঁচ কেজি পর্যন্ত ওজন হতে পারে। এই ওজনজনিত সমস্যা থেকে কিছুটা মুক্তি পেতে চাইলে আপনি বিখ্যাত সব ব্র্যান্ডের আলট্রা-লাইট ব্যাকপ্যাকিং টেন্টগুলো পছন্দ করতে পারেন। যেগুলোর ওজন সাধারণত আয়তন ভেদে এক কেজির কম থেকে শুরু করে তিন কেজি পর্যন্ত হতে পারে। তবে হ্যাঁ এসব আলট্রা-লাইট ব্যাকপ্যাকিং টেন্টগুলোর দাম সাধারণ ব্যাকপ্যাকিং টেন্টগুলোর তুলনায় ব্র্যান্ড ভেদে তিন চার গুন বা তারও বেশী। অতএব, পকেটের স্বাস্থ্যের কথাটা ভাবাও এক্ষেত্রে ভীষণ জরুরী।

আশা করছি সবাই এতক্ষণে বুঝে গেছেন তাবু কেনার সময় কি কি বিষয় মাথায় রাখা উচিত । এরপরও যদি আপনাদের মনে কোন প্রশ্ন থাকে কিংবা যদি মনে হয় এখানে কোন বিষয় বাদ পড়ে গেছে তাহলে কমেন্ট বক্সে জানান। আমরা আপনার সকল প্রশ্নের উত্তর দিতে সবসময় সচেষ্ট। আর হ্যাঁ, অ্যাডভেঞ্চার বা অ্যাডভেঞ্চার সম্পর্কিত জিনিসপত্রের ব্যাপারে আরো অনেক প্রশ্নের জবাব পেতে ভিজিট করুন আমাদের নিয়মিত বিভাগ OUTDOOR HACKS!


পুনশ্চ: ঘুরতে গিয়ে যেখানে সেখানে ময়লা আবর্জনা ফেলবেন না। অপচনশীল যেকোন আবর্জনা যেমন পলিব্যাগ, বিভিন্ন রকম প্লাস্টিক প্যাকেট, যে কোন প্লাস্টিক এবং ধাতব দ্রব্য ইত্যাদি নিজেদের সাথে নিয়ে এসে উপযুক্তভাবে ধ্বংস করুন। এই পৃথিবীটা আমাদের অতএব, এটাকে বাঁচিয়ে রাখার দায়িত্বও আমাদের।