আপনার ভ্রমণকে আরও উপভোগ্য এবং নিরাপদ করতে থানচি প্রশাসন কর্তৃক কিছু নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। জেনে নিন নির্দেশনাগুলো।

থানচি পর্যটন এলাকায় ভ্রমণ বিষয়ক প্রশাসন কর্তৃক নির্দেশনাঃ

১. থানা ও স্থানীয় প্রশাসনের অনুমতি ব্যতিরেকে কোন ক্রমে ভ্রমণ এলাকায় যাওয়া যাবে না।
২. নিবন্ধিত ব্যতিত অন্য কাহারো সহিত পর্যটন এলাকায় যাওয়া যাবেনা।
৩. ভ্রমণ এলাকায় গমনের পূর্বে সংশ্লিষ্ট বিজিবি/নিরাপত্তা বাহিনীর ক্যাম্পে নাম/ঠিকানা/গন্তব্য স্থান/গাইডের নাম এবং ফেরত আসার সময় লিপিবদ্ধ করতে হবে।
৪. রাত্রি যাপনের স্থান সেনা/বিজিবি/পুলিশ ক্যাম্পে অবগত করতে হবে।
৫. পর্যটকবাহী নৌকায় অবশ্যই লাইফ জ্যাকেট থাকা বাঞ্ছনীয়। লাইফ জ্যাকেট না থাকলে সেই নৌকায় ভ্রমণ নিরাপদ হবে না।
৬. পর্যটকগণ যে সকল জায়গায় গমনে ইচ্ছুক সে জায়গার নিকটস্থ নিরাপত্তা বাহিনীর ক্যাম্পে বিষয়টি অবগত করতে হবে।
৭. পর্যটনের জন্য দর্শনীয় স্থানের মধ্যে তিন্দু বাজার, বড়পাথর, নাফাখুম ঝরণা এবং রেমাক্রি উল্লেখযোগ্য বিধায় এর বাইরে অপরিচিত নতুন জায়গা আবিষ্কার/ গভীর অরণ্যে গমন নিরাপত্তার জন্য খুবই ঝুঁকিপূর্ণ।
৮. ভ্রমণকালীন সময়ে কোন প্রকার নেশাজাতীয় দ্রব্য বহন/সেবন হতে বিরত থাকা বাঞ্ছনীয়। এছাড়া কোন প্রকার অসামাজিক কাজে লিপ্ত হওয়া যাবে না।
৯. পর্যটন এলাকায় অবস্থানকালীন সময়ে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীদের সাথে কোন প্রকার অসৌজন্যমূলক আচরণ/কার্যকলাপের সাথে লিপ্ত হওয়া যাবে না। এছাড়া স্থানীয়দের সামাজিক কৃষ্টি, আচার ও ব্যবহারের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থাকা বাঞ্ছনীয়।
১০. মহিলা পর্যটকের দামি অলংকার সঙ্গে নিয়ে দুর্গম এলাকায় ভ্রমণ না করা এবং প্রয়োজনের অতিরিক্ত ক্যাশ টাকা সঙ্গে না রাখা বাঞ্ছনীয়।
১১. স্থানীয়/ গাইডের নিকট নিজেকে বিজ্ঞানী প্রমাণের অহেতুক প্রচেষ্টা প্রকারন্তরে নিজের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে।
১২. নিরাপত্তা বাহিনী কর্তৃক অহেতুক তাদের পর্যটন এলাকায় গমনে বিধি নিষেধ করা হয়েছে এমন মনোভাব পোষণ না করে এবং পর্যটন শিল্পকে আরও উপভোগ্য করে বিকশিত করার জন্য সর্বোপরি পর্যটকদের জীবনের নিরাপত্তার স্বার্থে নিরাপত্তা বাহিনীর পর্যটন শিল্পকে শৃঙ্খলার মধ্যে আনার চেষ্টা করছে বিষয়টিকে এইভাবে ইতিবাচক দৃষ্টিতে দেখলে আপনার ভ্রমণ আরো উপভোগ্য হবে।
১৩. ভ্রমণে অনুমতির সময় অবশ্যই আইডি কার্ড সাথে রাখতে হবে।
১৪. ভ্রমণের সময় যে কোনো প্রকার হয়রানি অথবা প্রতারণার শিকার হলে অবশ্যই থানচি পুলিশ/বিজিবি ক্যাম্পে অবহিত করতে হবে।

নির্দেশনায়ঃ থানচি উপজেলা প্রশাসন, বান্দরবন।


পুনশ্চ: ঘুরতে গিয়ে যেখানে সেখানে ময়লা আবর্জনা ফেলবেন না। অপচনশীল যেকোন আবর্জনা যেমন পলিব্যাগ, বিভিন্ন রকম প্লাস্টিক প্যাকেট, যে কোন প্লাস্টিক এবং ধাতব দ্রব্য ইত্যাদি নিজেদের সাথে নিয়ে এসে উপযুক্তভাবে ধ্বংস করুন। এই পৃথিবীটা আমাদের অতএব, এটাকে বাঁচিয়ে রাখার দায়িত্বও আমাদের।